Saturday, June 15সময়ের নির্ভীক কন্ঠ
Shadow

সাংবাদিক শামীম আরমানের ওপর হামলায় দোহার থানায় মামলা

মো.শাহীন‌উজ্জামান শাহীন, দোহার-নবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: ঢাকা জেলার দোহার উপজেলায় ঈদের আগের রাত (চাঁদ রাতে) আতশবাজি গায়ে ছুঁড়তে নিষেধ করাকে কেন্দ্র করে চ্যানেল ২৪ ও মানবজমিনের দোহার প্রতিনিধি ও চৌকস সাংবাদিক শামীম আরমানের ওপর দুর্বৃত্তদের হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে। গতকাল রোববার (২৩ এপ্রিল) বিকেলে এ তথ্য নিশ্চিত করে দোহার থানার ওসি মো.মোস্তফা কামাল জানান,

মামলায় এজাহার নামীয় আটজনসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৭ থেকে ৮ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলার এজাহার থেকে জানা যায়,ঈদের আগের রাত (চাঁদ রাতে) শামীম আরমান তার ব্যক্তিগত কাজে জয়পাড়া যাওয়ার উদ্দেশে তার বাসা থেকে বের হয়ে দক্ষিণ জয়পাড়া এলাকা পশু হাসপাতাল সংলগ্ন আবুলের বাড়ি সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় তপু নামের এক কিশোর তার শরীরে একটি আতশবাজি ছুঁড়ে মারে।

এ সময় ওই কিশোরের কাছে শামীম আরমান আতশবাজি ছুঁড়ে মারার কারণ জানতে চাইলে তার বড় ভাই অপু এসে তার ভাইকে কেনো হুমকি দিচ্ছেন বলে বাকবিতণ্ডা শুরু করেন। পরে স্থানীয়রা বিষয়টি মিটিয়ে দিলে শামীম আরমান সেখান থেকে চলে আসে।

এরপরে শামীমের বাসায় ফিরলে আগের ঘটনাকে কেন্দ্র করে অপুসহ আরও কয়েকজন শামীমের বাড়ির সামনে অবস্থান নিয়ে শামীমের সাথে বিরোধে জড়াতে প্রায় দেড় ঘণ্টা আতশবাজি ফাটায়। যা এলাকা বাসীর বিরক্তের মূল কারণ হয়। এ কারনে শামীম তাদের আতশবাজি অন্যত্র ফাটানোর জন্য বিনয়ের সাথে অনুরোধ করেন। কিন্তু তাদের মধ্যে জীবন নামের এক ছেলে নেশাগ্রস্ত ও
মাতাল অবস্থায় শামীমকে বকাঝকা করেন।

সেই সূত্রধরে ঈদুল ফিতরের নামাজ শেষে শামীমের সঙ্গে ঘটে যাওয়া রাতের ঘটনার কথা স্থানীয় মুরব্বিদেরকে জানায়। এসময় জামাল আহমেদ জানান এটা তার লোক।
তারা যা করবে তাই-ই মেনে নিতে হবে। এ নিয়ে শামীম আরমানের সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে জামাল আহমেদ ও স্থানীয় শামীম চৌধুরীর নির্দেশে সাংবাদিক শামীম আরমানের উপর লাঠি সোটা নিয়ে অর্তকিতভাবে
হামলা চালায়। শামীম আরমান মার খেতে খেতে দৌড়ে বাসার গেটের ভেতরে প্রবেশ করলেও আসামিরা ঐ
গেটের ভেতরে প্রবেশ করে তাকে এলোপাথাড়ি কিল-
ঘুষি মেরে পিটিয়ে আহত করেন।

এ হামলায় আহত গণমাধ্যম কর্মী শামীম আরমান জানান, তারা আমার ওপর হামলা করেও ক্ষান্ত হননি। এখন আমার বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সহ বিভিন্ন মাধ্যমে মিথ্যাচার ও করছে।

দোহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অফিসার ইনচার্জ ওসি মোস্তফা কামাল বলেন,খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ ঘটনায় চ্যানেল ২৪ এর শামীম আরমান বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন। মামলার তদন্ত চলছে। সাংবাদিকের ওপর যারাই হামলা করেছেন তার তদন্ত সাপেক্ষে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।

সাংবাদিকের ওপর এ হামলার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে দোহার সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার এএসপি মো.আশরাফুল আলম তিনি বলেন,পুলিশ ঘটনাটি অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করছে। তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা হবে এতে কোনো সন্দেহ নেই।

শেয়ার বাটন