Saturday, June 15সময়ের নির্ভীক কন্ঠ
Shadow

কালিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের অভিষেক অনুষ্ঠিত

হাফিজুর রহমান কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা) থেকেঃ স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে হলে প্রথমে নিজেকে সৎ যোগ্য স্মার্ট মানুষ হতে হবে। তা না হলে স্মার্ট ভিলেজের নামে প্রকল্পের টাকা লোপাট করে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়া সম্ভব না । আমি আপনাদের উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান না ‘আমি সেই আগের মত চায়ের দোকানে, রাস্তার জনগণের সুমন হয়ে মিলেমিশে থাকতে চাই। আপনারা আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন তাই জনগনই আমার শক্তি। আমি উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, মেম্বর এবং দলীয় নেতাকর্মী মুরুব্বীদের নিয়ে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে চাই। জনগণের চাওয়া মানে আমার চাওয়া সে লক্ষ্যে আমার পরিষদ কাজ করে যাবে। কোন প্রকার অন্যায়, দুর্নীতি, স্বজন প্রীতি, অবিচার, লুটপাট সহ্য করা হবে না। কাজ করতে গেলেই মানুষ মাত্রই ভুল হতে পারে। তবে ভিলগুলো ধরে দিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে আপনাদের সহযোগিতা নিয়ে আপনাদের পরিশ্রমের ভোট নিয়ে সামনের ৫ টি বছর যেন শেষ করতে পারি। এই লক্ষ্যে আপনারা আমার পরিষদের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়াবেন। সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার সর্বস্তরের জনগণের আয়োজনে উপজেলা স্বাধীনতা পরিষদ শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও উত্তর কালিগঞ্জ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় গতকাল রবিবার (৯ জুন) বেলা ১১ টার সময় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সদ্য সমাপ্ত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জয়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানদের অভিষেক অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথি হিসেবে কালিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার শেখ মেহেদী হাসান সুমন উপরোক্তো কথাগুলো বলেন। উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও তারালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এনামুল হোসেন ছোট তার বক্তব্যে বলেন ২লক্ষ ৬৭ হাজার ভোটার তাদের ভোট দিয়ে মেহেদী হাসান সুমনকে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেছেন। আশা করি আগামী ৫ বছর উপজেলার সাধারণ ভোটার অর্থাৎ জনগণ জনপ্রতিনিধি দলীয় নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে কোন বিভেদ সৃষ্টি না করে উপজেলার উন্নয়ন কাজ এগিয়ে নিতে হবে। তা না হলে আমাদের অতীত থেকে শিক্ষা নিতে হবে। ৫ বছর পর জনগণ যেন আমাদের প্রত্যাখ্যান না করে সেই লক্ষ্যে জনপ্রতিনিধিদের যোগ্য সম্মান দিয়ে কাজ করার আহ্বান জানান। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ধলবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী শওকত হোসেন তার বক্তব্যে বলেন আমরা অতীতে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের নিকট থেকে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা লাঞ্ছিত ছাড়া কিছু পায়নি। তাই নবনির্বাচিত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের নিকট আবেদন থাকবে কিছু না দিতে পারলেও যোগ্য সম্মানটুকু যেন আমরা পাই। আমরা চাই মিলেমিশে আপনার উন্নয়নের সাথে থাকতে পারি। তা না হলে তারা ৫ বছর পরে আবার এইভাবে প্রত্যেককে শিক্ষা নিতে হবে। উপজেলা পরিষদের মেম্বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ইউপি সদস্য সাইলুজ্জামান সাইলু তার বক্তব্যে বলেন আমরা ভোটের সময় যেভাবে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ভোট দিয়ে আপনাকে নির্বাচিত করেছি এইভাবে আপনার পাশে থেকে উপজেলার উন্নয়নের পাশে থাকতে চাই। আমাদেরকে সহযোগিতা করবেন আশা রাখি । বীর মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে কালিগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক সহকারি কমান্ডার ও মথুরেশ পুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাকিম তার বক্তব্যে বলেন উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত ৩
জনেই আমাদের সন্তান। অতএব তাদেরকে সহযোগিতা করে সামনে এগিয়ে নিতে আমাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা থাকবে তা না হলে আবারো নির্বাচন আসলে জনগণ এই পরিষদ কে প্রত্যাখ্যাত করবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হলে তার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তোলে কালিগঞ্জ উপজেলাবাসিকে কে সামনে এগিয়ে নিতে হবে। কালিগঞ্জ উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক গ্রাম্য ডাক্তার মিলন কুমার ঘোষ তার বক্তব্যে বলেন বিগত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সাঈদ মেহেদী আমাদের হিন্দুদের রাজাকার বানাইছিল।। বিগত পাঁচ বছরে তার কোন সহযোগিতা ও কাজ পায়নি বঞ্চিত হয়ে ৫ টি বছর কাটিয়েছি আমরা নব নির্বাচিত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার শেখ মেহেদী হাসান সুমনের নিকট কিছু না পেলেও অন্তত ভালো ব্যবহার টুকু আশা করতে পারি। আমরা তার উন্নয়নে সর্বাত্মক সহযোগিতা করতে চাই। সংবর্ধিত অতিথি হিসেবে নব নির্বাচিত উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উজ্জীবনি ইনস্টিটিউট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফিফা রেফারি শেখ ইকবাল আলম বাবলু তার বক্তব্যে বলেন উপজেলার জনগণ আমাদের ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছে আমরা তাদের ভোটের মূল্যায়ন করে উন্নয়ন কাজ একসঙ্গে এগিয়ে নিতে চাই। এজন্য আমাদের কোন ভুল ভ্রান্তি হলে আপনারা ধরিয়ে দিয়ে সহযোগিতা করবেন। আমরা উপজেলাকে মাদক এবং দুর্নীতিতে জিরো টলারেন্স দেখাতে চাই। নবনির্বাচিত উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারজানা ইয়াসমিন আফি তার বক্তব্যে বলেন আমরা উপজেলার সর্বস্তরের মানুষ এবং চেয়ারম্যান মেম্বারদের সাথে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে উপজেলাকে মডেল উপজেলা বানাতে চাই। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পক্ষে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি দুলাল চন্দ্র ঘোষ তার বক্তব্যে বলেন বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়তে হলে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে উপজেলা পরিষদের উন্নয়ন কাজ ত্বরান্বিত করতে হবে। সে লক্ষ্যে কালীগঞ্জ উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজের সহযোগিতা করে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তোলার কাজ এগিয়ে নিতে হবে । ওই সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাফিয়া পারভিন, বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যাটন জাহাঙ্গীর আলম, দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোবিন্দ মন্ডল , চাম্পাফুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক্ গাইন, কুশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানশেখ আবুল কাশেম মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ , নলতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান, ভাড়াশিমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও থানা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল ইসলাম নাঈম, রতনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলিম আল রাজি টোকন এবং মৌতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম প্রমূখ। এছাড়াও উক্ত অনুষ্ঠানে উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক। উপজেলা শিক্ষক সমিতি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ সুধী সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার বাটন